প্রয়োজনে ফৌজদারি কার্যবিধি সংশোধন: আইনমন্ত্রী

0
611
anisul hoque

anisul hoque

জনগণের উপকারে ফৌজদারি কার্যবিধি সংশোধনের প্রয়োজন হলে তা করা হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে ৫৪ ও ১৬৭ ধারা সংশোধনে এক যুগ আগে হাইকোর্টের দেয়া রায় আপিল বিভাগে বহালের পর এক প্রতিক্রিয়ায় আইনমন্ত্রী এই সব কথা বলেন।আইনমন্ত্রী বলেন, ২টি ধারার বিষয়ে আদালত পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন শুনেছি। কিন্তু রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি এখনো হাতে আসেনাই। পূর্ণাঙ্গ কপি হাতে না পেলে এই বিষয়ে কিছু বলা ঠিক হবে না তিনি বলেন। এ ধারা বিষয়ে আদালতের কোনো নির্দেশনা থাকলে জনগণের স্বার্থে তা বিবেচনা করা হবে। আইনমন্ত্রী বলেন, আইনে ৫৪ ধারা ১টি জরুরি বিধান। এর ব্যবহারের ওপর নির্ভর করছে ধারাটি ভালো কি মন্দ। এ ধারাটি তখনই প্রয়োগ করা উচিত যখন কেউ অপরাধ করতে যাচ্ছে বলে পুলিশের মনে হয়। এর বাইরে নয়। অনেক সময় দেখা যায় আটক করার ২/৩ দিন পর গ্রেপ্তার দেখানো হচ্ছে, সাংবাদিকরা এমন তথ্য জানালে প্রত্যুত্তরে আইনমন্ত্রী বলেন, এ রকম ঘটনা আমার জানা নেই। আপনাদের জানা থাকলে জানান। আমরা ব্যবস্থা নেব। সকালে ফৌজদারি কার্যবিধির ৫৪ ধারা (বিনা পরোয়ানায় গ্রেপ্তার) ও ১৬৭ ধারায় আসামিকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ (পুলিশি রিমান্ড) সংশোধনে এক যুগ আগে হাইকোর্টের দেয়া রায়ের বিরুদ্ধে সরকারের করা আপিল খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বেঞ্চ এই রায় দিয়েছেন। এ রায়ের ফলে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ও পুলিশি হেফাজতে আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ সংক্রান্ত হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছিলেন, সেটিই বহাল আছে।

LEAVE A REPLY