২০-এ পৌঁছে যে জীবন দক্ষতাগুলো সকলেরই শেখা উচিৎ

0
615
job

পুরোপুরি কার্যকর একজন প্রাপ্তবয়স্ক লোক হিসেবে বিবেচিত হওয়ার জন্য ২০ থেকে ৩০ বছর বয়সের মধ্যেই এই জীবন দক্ষতাগুলো অর্জন করা উচিৎ।
১. কীভাবে সৎ হতে হবে
কোথাও পৌঁছাতে নির্দিষ্ট সময়ের চেয়ে দেরি হয়ে গেল মিথ্যা কোনো অজুহাত না দেখিয়ে বরং ক্ষমা প্রার্থনা করুন।

এবং বলুন আমি আসলে ঠিক মতো পরিকল্পনা করতে না পারার কারণেই এমনটা ঘটেছে।
২. সমালোচনা গ্রহণ করতে হয় কীভাবে
যারা আপনার সমালোচনা করে তাদের প্রতি বিরক্তি প্রদর্শন কিংবা তাদেরকে পুরোপুরি অগ্রাহ্য করাটা হয়তো সহজ। কিন্তু জীবনে সফল হতে হলে আপনাকে সবসময়ই সমালোচনা গ্রহণ করতে হবে। এবং এর প্রতি ইতিবাচকভাবে সাড়া দিতে হবে। আর যারা আপনার ভুলগুলো দেখিয়ে দেবে তাদের ব্যাপারে কখনোই বাজেভাবে চিন্তা করা যাবে না।
৩. কীভাবে একটি আকর্ষণীয় কথপোকথন শুরু করতে হয়
কথপোকথন শুরু  করার দক্ষতাকে সবচেয়ে কম মূল্য দেওয়া হয়ে থাকে। কিন্তু অভিজ্ঞতায় দেখা গেছে, আপনি যদি আপনার পাশে বসা লোকটির সঙ্গে সহজেই একটি কথপোকথন শুরু করার সাহস দেখাতে পারেন তাহলে আপনি হয়তো একজন নতুন বন্ধু, একটি ব্যবসায়িক যোগাযোগ বা পুরোনো কোনো একটি বিষয়ে অভিনব কোনো অন্তদৃষ্টি লাভ করবেন।
৪. আপনি যা চান তা কীভাবে চাইতে হবে
ক্যারিয়ারের উন্নতিতে সবচেয়ে সহজ এবং সবচেয়ে কম ব্যবহৃত দক্ষতাটি হলো কোনো কিছু চাওয়ার সামর্থ্য। কিন্তু আপনি যদি বেতন বাড়ানোর অনুরোধ করার বা পদোন্নতি চাওয়ার সাহস না দেখান তাহলে আপনি কোনোদিনই তা পাবেন না।
৫. প্রতিশ্রুতি পালন করতে হবে কীভাবে
প্রতিশ্রুতি পলন না করলে লোকে আপনার ওপর আস্থা ও বিশ্বাস হারাবেন। যার সংশোধন খুবই কঠিন।
৬. কার্যকরভাবে যোগাযোগ করতে হয় কীভাবে
আপনি যে খাতেই কাজ করেন না কেন আপনি চাইলে সবসময়ই আপনি কীভাবে কথা বলছেন এবং লিখছেন তার উন্নতি সাধন করতে পারেন। সুতরাং চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করুন এবং সুন্দরভাবে ইমেইল লেখা বা বৈঠকে কথা বলার চেষ্টা করুন।
৭. প্রাণবন্ত থাকতে হয় কীভাবে
আপনার বাকী জীবনটাতে নানা বিপত্তি, দুঃখ এবং হতাশা আসবে। সুতরাং প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার প্রথম সময়টাতেই দুর্দশা থেকে মুক্ত থাকার দক্ষতা শিখে নিন। ৩০ এর পরে গিয়ে দায়িত্ব অনেক বেড়ে যায়। ফলে ৩০ এর আগেই মানুষ অনেক বেশি মুক্ত বা স্বাধীন থাকেন। সুতরাং ২০ থেকে ৩০ এর মধ্যেই পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো, ব্যর্থ হওয়া এবং পুনরায় শুরু করার সবচেয়ে ভালো সময়। কীভাবে ব্যর্থতা কাটিয়ে উঠতে হয় এবং অধ্যাবসায়ী হতে হয় তা শিখুন।
৯. সামর্থ্যের মধ্যেই জীবন-যাপন করতে হয় কীভাবে
ব্যয়ভার বহন করতে সক্ষম হলেই শুধু বিলাসিতা সুন্দর বিষয়। এমন জীবন-যাপনে অভ্যস্ত হবেন না যার ব্যয়ভার আপনি বহন করতে পারবেন না। সাদামাটাভাবে জীবন-যাপন করতে শিখুন এবং সঞ্চয় করুন।
১০. প্রত্যাখ্যানের সঙ্গে মোকাবিলা করতে হয় কীভাবে
অনেকেই ২০ থেকে ৩০ বছর বয়সের মধ্যে নতুন নতুন অভিজ্ঞতা অর্জনের চেষ্টা চালান। এর অনেকগুলোতে তারা সফল হন আবার অনেকগুলোতে ব্যর্থ হন। সুতরাং এই সময়টাতেই কোথাও প্রত্যাখ্যাত হলে তা মোকাবিলা করার পদ্ধতি শেখার সবচেয়ে ভালো সময়। মনে রাখবেন কোথাও প্রত্যাখ্যাত হলে সেখানেই আপনার জীবন থেমে থাকবে না। সুতরাং ভেঙ্গে না পড়ে সামনে এগিয়ে যান অব্যাহত গতিতে।

১১. টেক্সট বই ছাড়াই কীভাবে শিখতে হয়
শেখার বিষয়টা শুধু বিদ্যালয়ের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখতে নেই। যে কোনোখানে, যে কোনো সময়ে এবং যে কারো কাছেই শেখা যায়। আপনাকে সবসময়ই নিজের মনটাকে সম্প্রসারিত করার নতুন নতুন উপায়ের সন্ধান করতে হবে। বই পড়ুন, বিদেশি ভাষায় কথা বলার চর্চা করুন বা সঙ্গীত শিখুন। অর্থাৎ যা কিছু শিখে আপনি সবচেয়ে বেশি আনন্দ পান তাই শিখুন।

১২. পরিবর্তনের সম্ভাবনা মেনে নিতে হয় কীভাবে
ভবিষ্যতে আমরা কতটা পরিবর্তিত হব তা কল্পনা করতে গিয়ে আমাদেরকে কঠিন সময় পার করতে হয়। কয়েক বছর আপনি কোথায় থাকবেন তা অনুমান করাও আপনার জন্য প্রায় পুরোপুরি অসম্ভব। সুতরাং জীবনের নানা দিক উদঘাটনে বিস্মিত হওয়ার প্রত্যাশা করুন।

১৩. সিদ্ধান্ত নিতে হয় কীভাবে
বিশ্লেষণ থেকে কোনো পদক্ষেপ বাস্তবায়নে যাওয়ার সেতুবন্ধ হিসেবে কাজ করে যা তা হলো কার্যকর সিদ্ধান্ত গ্রহণ। আর কোনো বিষয়ে ইতিমধ্যেই প্রাপ্ত তথ্য-উপাত্তের ওপর ভিত্তি করেই সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হয়। কোনো বিষয়ে খুব বেশি সমালোচনামূলক হওয়াটা যেমন বিপজ্জনক তেমনি কোনো বিষয়ে খুব বেশি বিশ্লেষণমূলক হওয়া বা আরো বেশি তথ্যের জন্য অপেক্ষা করাটাও সমান বিপজ্জনক।
সুতরাং কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় ভাবুন কেউ একজন আপনার মাথায় বন্দুক ধরে রেখেছেন এবং আপনাকে মাত্র ১৫ মিনিট সময় দিয়েছেন কোনো বিষয়ের সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য। এতে আপনি নিশ্চিতভাবেই দ্রুত কিছু একটা সিদ্ধান্ত গ্রহণে সক্ষম হবেন। আর এতে আপনার প্রচুর চাপ মুক্তিও ঘটবে দ্রুত।

১৪. নিজেকে কীভাবে বিক্রি করতে হবে
এই দক্ষতাটি শুধু পেশাদার বিক্রয়কর্মীদের জন্য নয়। জীবনের যে কোনো ক্ষেত্রেই নিজেকে অন্যদের কাছে বিক্রি করতে পারার দক্ষতা একটি অতীব গুরুত্বপূর্ণ দক্ষতা। কর্মব্যবসায় নিজেকে আপনার খদ্দের এবং সম্ভাব্য নিয়োগকর্তার কাছে বিক্রি করতে হবে। আর একজন জীবন সঙ্গী বা সঙ্গিনী খুঁজে বের করার জন্য আপনাকে কারো কাছে নিজেকে এবং তাদের জীবনে আপনার সম্ভাব্য উপকারিতা বিক্রি করতে হবে।

১৫. আলোচনা বা দরকষাকষি করতে হয় কীভাবে
চাকরির ইন্টারভিউ বা যে কোনো লেনদেনের ক্ষেত্রে আলোচনা ও দরকষাকষির দক্ষতা অর্জন একটি অতীব গুরুত্বপূর্ণ জীবন দক্ষতা। সুতরাং ৩০ বছর বয়সের মধ্যেই এটি অর্জন করুন।

১৬. কথা না বলেই কীভাবে শুনতে হয়
এই দক্ষতাটি ব্যবহার করে আপনি আরো কার্যকরভাবে যোগাযোগ করতে পারবেন এবং জীবনে আরো ভালো সম্পর্ক স্থাপন করতে পারবেন।
১৭. ধৈর্য্যশীল হতে হবে কীভাবে
ভালো কিছু রাতারাতিই অর্জিত হয় না। এর জন্য প্রচুর সময় লাগে। এর জন্য প্রচুর কাজও করা লাগে। প্রচুর চিন্তারও দরকার হয়। প্রচুর চেষ্টা ও ভুল শোধরানো এবং ভুল থেকে প্রচুর শেখার প্র্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হয়।

LEAVE A REPLY